Course Content
ই-বুক চর্চা করে ২৪২ টি হোমিওপ্যাথি ঔষধের পণ্ডিত হতে পারবেন
0/242
ভিডিও দেখে ২৪২ টি ঔষধ অতি দ্রুত শিখুন
প্রতিদিন সকালে ১০ টি ও সন্ধ্যায় ১০টি করে ঔষধের ভিডিও শ্রবণ করুণ।
0/24
কোন রোগের কি ঔষধ
0/2
DHMS প্রথম বর্ষের অনুশীলন
0/29
DHMS দ্বিতীয় বর্ষের অনুশীলন
0/21
DHMS তৃতীয় বর্ষের অনুশীলন
0/36
DHMS চতুর্থ বর্ষের অনুশীলন
হোসাইনী কিনোট- প্রিন্টেড বুক, ই-বুক ও ভিডিও সম্বলিত স্মার্ট মেটেরিয়া মেডিকা।
About Lesson

১. Abrotanum [Abrot] এব্রোটেনাম

Abrot: কোনো বিষয়ে বোঝার ক্ষমতা কম, অত্যন্ত খিটখিটে ও নিষ্ঠুর।

Abrot: দেখতে বৃদ্ধের মত, পেট ফোলা, নিম্নাংশ বিশেষত পা দুটো শুষ্ক।

Abrot: পর্যায়ক্রমে উদরাময় ও বাত, উদরাময়ে অজীর্ণ মল।

Abrot: পাকস্থলীটি যেন ঝুলে আছে অথবা পানির উপর ভেসে আছে এমন অনুভূতি।

Abrot: ব্যথাযুক্ত প্রদাহ, বাতে ফুলে উঠার পূর্বেই আক্রান্ত স্থানে ব্যথা।

Abrot: রোগান্তর প্রাপ্তি, যেমন উদরাময় দমনের ফলে বাত, গেঁটেবাত দমনের ফলে হৃদরোগ ইত্যাদি।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< ঠাণ্ডা বাতাসে

< শরীরের কোনো স্রাব চাপা পড়লে

< কুয়াশায়

< রাতে

< স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়ায় বা পরিবেশে

> পাতলা পায়খানা হলে

> নড়াচড়ায়

 

 

২. Aceticum Acidum [Acet-ac] এসেটিক এসিড

Acet-ac: মনের বিশৃঙ্খলা, রোগী নিজের সন্তানকে পর্যন্ত চিনতে পারে না, সম্প্রতি যা ঘটেছে তাও ভুলে যায়।

Acet-ac: মর্মবেদনার কারণে শ্বাসরোধ অনুভূতি, মেঝেতে হামাগুড়ি দেয়, প্রলাপ বকার সহিত পর্যায়ক্রমে অচৈতন্য অবস্থা।

Acet-ac: অত্যন্ত পিপাসা, যথেষ্ট পানি পান করেও তৃপ্ত হয় না, উদরী, বহুমূত্র ও পুরাতন উদরাময়ে প্রচুর পিপাসা দেখা যায় কিন্তু জ্বরে পিপাসা থাকে না।

Acet-ac: অত্যন্ত অবসাদ, বিশেষ করে আঘাত লাগা বা অস্ত্রোপচারের পরে।

Acet-ac: চিৎ হয়ে শুয়ে ঘুমাতে পারে না, উপুড় হয়ে শুলে ঘুম হয়।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< ঠাণ্ডা বাতাসে

< ভেজা অবস্থায়

< শরীরের কোনো স্রাব চাপা পড়লে

< কুয়াশায়

< রাতে

> নড়াচড়ায়

> পাতলা পায়খানা হলে

 

 

৩. Aconitum Napellus [Acon] একোনাইটাম নেপেলাস

Acon: শুষ্ক শীতল বাতাস অথবা অতি উত্তপ্ত বাতাস লেগে অসুস্থতা।

Acon: কোনো রোগের হঠাৎ আক্রমণ, প্রচণ্ড প্রকোপ ও অসহনীয় বেদনার সহিত ছটফটানি।

Acon: অস্থিরতা, কাতরতা, রোগী সর্বদা ছটফট করে, এপাশ ওপাশ করে, কিছুতেই শান্তি পায় না।

Acon: ভয়, মৃত্যুভয়, লোক সমাগমে ভয়, বাহিরে যেতে ভয়, সর্বদা শঙ্কিত ও ভীত, মৃত্যুর সময় পর্যন্ত নির্দিষ্ট করে বলে দেয়।

Acon: ঘর্মহীনতা তবে হৃদরোগে প্রচুর ঘর্ম হয়।

Acon: পানি ভাল লাগে না, তবুও পানি পান করে যেনো পানির তৃষ্ণা মিটেই না।

Acon: এক গাল লাল অপর গাল ফ্যাকাশে।

Acon: গান শুনতে অসহ্য লাগে, গান তাকে আরো দুঃখী করে তোলে।

Acon: হেলে থাকা বা অর্ধশোয়া অবস্থান থেকে উঠলে, লাল মুখটি মারাত্মক ফ্যাকাশে হয়ে যায়, সে অজ্ঞান হয়ে যায়।

Acon: আতঙ্কের ফলে, রক্তাধিক্যপূর্ণ মেয়েদের মধ্যে বাধক বেদনা দেখা দেয়।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< অত্যাধিক আবেগে [ভয়, শক, বিরক্তি]

< ঘামের সময়, ঠান্ডা ও শুষ্ক বাতাসে

< শব্দে বা গোলমালে

< আলোতে

< রাতে

< দন্তোদগমের ফলে

< আক্রান্ত পার্শ্বে, চিৎ হয়ে বাম কাতে শয়ন করলে [Hep, Nux-m]

< বিছানায় গেলে

< বিছানা থেকে উঠার পর

< বদ্ধ উষ্ণ ঘরে

< তামাকের ধোঁয়ায়

< চাপলে, স্পর্শে

< মাসিকের সময়

< রোদ্রে ঘুমালে

< সঙ্গীতে

< অনুপ্রেরণা দিলে

 

> বিশ্রামে

> উষ্ণ ঘাম হলে

> স্থির হয়ে বসে থাকলে (বাত)

> ওয়াইন পান করলে

> খোলা বাতাসে [Alum, Mag-c, Puls]

 

 

৪. Agaricus Muscarius [Agar] এগারিকাস মাসকেরিয়াস

Agar: সমস্ত শরীরে ঝাঁকুনি ও কাঁপুনি, মাতালের মত টলমল করে চলে, মাথা কাঁপতে থাকে।

Agar: মানসিক পরিশ্রম করলে শরীর চুলকায়, খোঁচা মারা ব্যথা ও ঝিনঝিন করে কিন্তু শারীরিক পরিশ্রমে উপশম।

Agar: মেরুদণ্ডে আড়ষ্ট অনুভূতি, চাপ দিলে ব্যথা, পিঠে শীত ও পিঁপড়া হাঁটার মত অনুভূতি।

Agar: যৌনক্রিয়ার পর সকল রোগের বৃদ্ধি।

Agar: শরীরে যেন ঠাণ্ডা বরফের মত সুচ ফুটছে এমন অনুভূতি।

Agar: কোণাকুনিভাবে রোগ লক্ষণ দেখা দেয়, যেমন ডান হাতে ও বাম পায়ে বা তার বিপরীত লক্ষণ প্রকাশ পায়।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< বজ্রপাতের পূর্বে

< সহবাস করলে

< মেরুদণ্ডে চাপ পড়লে

< মাসিকের সময়

< খোলা ঠাণ্ডা বাতাসে

< সূর্যালোকে

< মানসিক অবসাদের ফলে

< এ্যালকোহল পানে

< স্পর্শে

< ঠাণ্ডা বাতাসে

< ভয়ে

> হালকা নড়াচড়ায়

> বিছানা গরম হলে

> নর্তন রোগ হলে

> ঘুমের সময়

 

 

৫. Agnus Castus [Agn] এগ্নাস কাস্টাস

Agn: ইন্দ্রিয়ের অতিরিক্ত অত্যাচারের ফলে অকাল বার্ধক্য, সম্পূর্ণভাবে স্বাস্থ্য ধ্বংস হওয়ার ভয়।

Agn: অতিরিক্ত হস্তমৈথুন করার ফলে ধাতুদৌর্বল্য, অল্প সময় স্থায়ী লিঙ্গ উত্থান।

Agn: সর্বদা বিষণ্ণ, রোগী মনে করে কাজকর্ম করে কোনো লাভ নেই, কারণ শীঘ্রই মৃত্যু হবে, মরে যাব, এ কথা বার বার বলে।

Agn: ঘরের ভিতরের বাতাস ঘন ও ভারী অনুভূত হয়।

Agn: অমনোযোগী, কোনো কাজে, বিষয়ে বা পড়াশোনায় মনোযোগ দিতে পারে না।

Agn: কোনো বস্তুর দিকে এক দৃষ্টে তাকিয়ে থাকলে মাথাব্যথার উপশম।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< অতিরিক্ত যৌন ক্রিয়ায়

< মচকে গেলে বা অতিরিক্ত ভার উত্তলন করলে

< উষ্ণ ঘরে

< স্পর্শে

> খোলা বাতাসে

> চাপলে

 

 

৬. Abies Nigra [Abies-n] এবিস নিগ্রা

Abies-n: অন্ননালীর (Alimentary canal) নিম্নপ্রদেশে পাকস্থলীর ঠিক উপরে যেন একটি সিদ্ধ ডিম বা ঢেলা আটকে আছে এমন অনুভূতি।

Abies-n: পেট ভরে খেলে বা আহারের পরই পাকস্থলীতে ব্যথা।

Abies-n: পাকস্থলীতে কষ্টদায়ক সঙ্কোচন অনুভূতি, মনে হয় যেন সবকিছু জড়িয়ে একটা ঢেলা হয়ে আছে।

Abies-n: বুকে যেন কিছু আটকে আছে এবং কাশলে ওঠে যাবে এমন অনুভূতি কিন্তু কাশলে কিছুই ওঠে না।

Abies-n: সকালে ক্ষুধা থাকে না, কিন্তু দুপুরে ও রাতে ভয়ানক ক্ষুধা থাকে।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< খাওয়ার পরে (হজমের সময়)

< কাশি দিলে

< শয়ন করলে

< ভোর ৫টা থেকে বেলা ৯টা পর্যন্ত

> নড়াচড়া এবং হাঁটাহাঁটি করলে (হজমের গোলযোগ)

 

 

৭. Allium Cepa [All-C] এলিয়াম সেপা

All-c: সর্দির সাথে নির্জীবতা, নিদ্রালুতা ও একাগ্র মনোযোগে অসুবিধা, বার বার হাঁচি ও ক্ষতকর সর্দিস্রাব, স্রাব লেগে উপরের ঠোঁট ও নাকে প্রদাহ হয়, তার সহিত চোখ দিয়ে পানি ঝরে কিন্তু চোখের পানি ঝাঁঝালো নয়।

All-c: ব্রংকাই (বায়ুনালী) পর্যন্ত সর্দি বিস্তৃত হয়ে প্রচুর পরিমাণে কফ নিঃসৃত হয়, কাশি ও ঘড়ঘড়ানি থাকে, শুষ্ক কাশির ফলে কণ্ঠনালী ছিঁড়ে যাবে এমন অনুভূতি।

All-c: স্নায়ুর নানা স্থানে সুতার মতো লম্বা ও সরু ব্যথা।

All-c: পেটে বায়ু জমে।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< সন্ধ্যায়

< উষ্ণ ঘরে

< পা ভেজালে

< ঠান্ডা স্যাঁতস্যাঁতে বাতাসে

< স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়ায়

< বসন্তকালে

< বসে থাকলে

< মানসিক আঘাতে

< গান গাইলে

< পঁচা মাছ খেলে

< শসা, সালাদ খেলে

< পীচ ফল ভক্ষণে (জামজাতীয় এক ধরণের ফল)

< অতিরিক্ত আহারের ফলে

> স্নানে

> ঠাণ্ডা খোলা বাতাসে

> ঠান্ডা ঘরে

> নড়াচড়ায়

 

 

৮. Allium Sativum [All-S] এলিয়াম স্যাটাইভা

All-s: উৎকণ্ঠা, রোগ আরোগ্য হবে না ও ঔষধ সহ্য হবে না বলে রোগীর দৃঢ় ধারণা।

All-s: আহারের সামান্য অনিয়মেই পেটের অসুস্থতা।

All-s: ভীষণ ক্ষুধার অনুভূতি, আহারের পর তন্দ্রালুতা, জ্বালাযুক্ত উদগার।

All-s: ঘুমের মধ্যে কান্না করে, সকালে বিছানায় শায়িত অবস্থায় মাথার পিছন দিকে মৃদু ব্যথা অনুভব হয়।

All-s: জিহ্বায় চুল লেগে থাকার অনুভূতি।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< তাপমাত্রার পরিবর্তনে

< সন্ধ্যায় ও রাতে

< ঠান্ডা, ভেজা আবহাওয়ায়

< খারাপ জল পান করলে

< খাওয়ার পর

< হাঁটাহাঁটি করলে

< পড়াশোনা করলে

< খোলা বাতাসে

< অতিরিক্ত খেলে

< চাপলে

> বাঁকা হয়ে বসে থাকলে

 

 

৯. Aloe Socotrina [Aloe] এলো সকোট্রিনা

Aloe: অধোবায়ু নিঃসরণ বা প্রস্রাব করার সময় অসাড়ে মলত্যাগ, গুহ্যদ্বারে ব্যথা ও জ্বালা।

Aloe: আমযুক্ত উদরাময়, সকালে পায়খানার বেগ চেপে রাখা যায় না, বিছানা থেকে ওঠার দেরি সহ্য হয় না।

Aloe: মলত্যাগের পূর্বে পেট ডাকে, পায়খানার সময় অসারে কিছুটা নির্গত হওয়ার পর অত্যন্ত কোঁথানি ও বায়ুনিঃসরন।

Aloe: তলপেটের ডান দিকে অসহ্য বেদনা পায়খানার পূর্বে ও সময়ে সেই ব্যথা বৃদ্ধি ও পায়খানার পরে উপশম।

Aloe: শরীরের ভিতরটা গরম, মল ও পেটের বায়ু গরম।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< গ্রীষ্মকালে

< শুষ্ক গরম আবহাওয়ায়

< ভোরবেলায়

< খাওয়া বা পান করার পরে

< হাঁটলে, দাঁড়ালে

> ঠাণ্ডা খোলা বাতাসে

> ঠান্ডা প্রয়োগে

 

 

১০. Alumen [Alumn] এলুমেন

Alumn: শরীরের বিভিন্ন স্থানে শুষ্কতা ও সঙ্কোচন অনুভূতি, মলদ্বার ও মূত্রথলির পেশীতে দুর্বলতা, হাত পায়ে দুর্বল অনুভূতি।

Alumn: প্রদাহের স্থানটি ফুলে শক্ত হয়ে ওঠে।

Alumn: মাথার তালু জ্বলে ও তাতে এমন চাপ অনুভূত হয় যেন মাথার খুলি চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে যাবে, হাত দিয়ে চেপে ধরলে উক্ত ব্যথার উপশম।

Alumn: শরীরের সকল স্রাব হলদে।

Alumn: নিদ্রার মধ্যে সকল শব্দ শুনতে পায়, ডানপাশে শুলে বুক ধড়ফড় করে।

 

বৃদ্ধি হয় উপশম হয়
< ঘুমের সময়

< ডান পাশে শয়ন করলে

< ঠাণ্ডায় (মাথাব্যথা বাদে, সবই ঠান্ডায় উপশম হয়)

< বিশ্রামে

> নড়াচড়ায়

> খোলা বাতাসে

> চাপলে

> খাওয়ার সময়

> স্পর্শে

> ঠাণ্ডা পানি পান করলে

Join the conversation
Dr A Alam Hossaini 3 months ago
hi
Reply
0% Complete